• ঢাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক


Nov 10, 2022
09:01:59

বুয়েটের ছাত্র ফারদিনের মৃত্যুর মামলায় বান্ধুবী গ্রেপ্তার

মেয়েটি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। গত ৪ নভেম্বর রাতে তাকে রামপুরা ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে নামিয়ে দেন ফারদিন। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন তিনি। পরে সন্তানের খোঁজ চেয়ে ফেসবুকে একটি পোস্টও করেন নূর উদ্দিন বলেন, ফারদিন বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। তাকে অনেক খোঁজাখুঁজির পর ৫ নভেম্বর রামপুরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন ফারদিনের বাবা নূর উদ্দিন।

তিনদিন নিখোঁজ থাকার পর নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্য নদী থেকে গত ৭ নভেম্বর সন্ধ্যার দিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল নিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশের (২৪) মরদেহ উদ্ধার করা হয় । এ ঘঠনায় বুধবার (৯ নভেম্বর) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে ফারদিনের আমাতুল্লাহ বুশরা নামে এক বান্ধুবীসহ অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে রামপুরা থানায় মামলা করছেন ফারদিনের বাবা নূর উদ্দিন রানা। মামলা হওয়ার পরে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বনশ্রী থেকে বুশরাকে গ্রেপ্তার করেছেন পুলিশ ।  রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমরা এই ঘটনায় বেশকিছু আলামত ধরে কাজ করছি। তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। গ্রেপ্তার বুশরাকে আদালতে পাঠানো হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, চার বছর ধরে ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ফারদিনের। তারা একটি ডিবেট ক্লাবেরও সদস্য। ৪ নভেম্বর ঘোরাফেরার পর রাত সোয়া ১০টায় ওই তরুণী বাসায় ফিরে আসেন বলে পুলিশকে তথ্য দেন তিনি। সাধারণ ডায়েরি গ্রহণ করে ওই তরুণীসহ অন্যান্যদের সঙ্গে ফারদিনের মোবাইল কল রেকর্ডের সূত্র ধরেই তদন্ত করবে বলে পুলিশ।